,
সংবাদ শিরোনাম :

করোনা রোগীদের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে রামেকের বার্ণ ইউনিট

রাজশাহী ব্যুরো : যেকোন ধরণের ফ্লু লাইক সিন্টমস থাকলেই তাদেরকে সন্দেহের তালিকায় রাখা হচ্ছে। তবে কাশি, শ্বাসকষ্ট, গলা ব্যাথা ও জ্বর থাকার অর্থই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নয়। টেস্টের পরই সেটা কনফার্ম করে বলা যাবে বলে জানিয়েছেন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনাভাইরাস আক্রান্ত চিকিৎসা কমিটির আহ্বায়ক ডা. আজিজুল হক আজাদ।

মঙ্গলবার রামেক হাসপাতালে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব তথ্য জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন রামেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক সাইফুল ফেরদৌস ও মেডিসিন বিভাগের প্রধান প্রফেসর ডা. খলিলুর রহমান।

ডা. আজিজুল হক বলেন, করোনা ভাইরাসে আক্রান্তরা যাতে অন্য কোন রোগীর সংস্পর্শে আসতে না পারে সেজন্য হাসপাতালের বার্ণ ইউনিট (২৯ ও ৩০নং ওয়ার্ড) আলাদাভাবে প্রস্তুত করা হচ্ছে। সেখানেই আক্রান্তদে রেখে চিকিৎসা দেয়া হবে। ১ এপ্রিল থেকে এটি চালু হবে।

চিকিৎসকেরা ভুল ধারণার বশবর্তি হয়ে কথা বলতে চায়না উল্লেখ করে আজিজুল হক আজাদ বলেন, পরীক্ষার পরই কেবল করোনাভাইরাসের আক্রান্ত বলতে চাই। হাসপাতালে পৃথক ল্যাবে করোনা পরীক্ষা চালু করার কাজ দ্রæত গতিতে এগিয়ে চলছে। যে কেউ চাইলেই টেস্ট করিয়ে নিতে পারবে না। প্রাতিষ্ঠানিকভাবে একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দেখার পর তার নমুনা সংগ্রহ করে নির্ধারিত ল্যাবে টেস্ট করা হবে। সোমবার থেকে আইডি (ইনফেকশন ডিজিজ) হাসপাতালের আইসোলেশনে রাখা পবার ১৭ বছর বয়সের রোগীর অবস্থা অপরিবর্তিত আছে। তাকে অবজারভেশনে রাখা হয়েছে। রামেক হাসপাতালের ল্যাব চালু হলে তার নমুনা নিয়ে টেস্ট করা হবে।

এছাড়াও হাসপাতালে আলাদা ভাবে ৩৯ ও ৪০নং ওয়ার্ডে পর্যবেক্ষণে রাখা ছয়জন রোগীর মধ্যে দুই জনের অবস্থার উন্নতি হওয়ায় তাদেরকে ছুটি দেয়া হয়েছে। বাকি চারজন চিকিৎসাধীন আছে। তাদের জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্ট ছিল। এখন তারা সবাই ভালো আছেন।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বশেষ আপডেট

সম্পাদক ও প্রকাশক : এম. এম. শরীফুল আলম তুহিন
ইমেইল : expresstimes24@gmail.com
মোবাইল: ০১৭১২ ৭৪৭ ১৩৯ # ০১৯১৯ ৭৪৭ ১৩৯